গোয়াইনঘাটে একটি বেড়িবাঁধে রক্ষা পেলো কৃষকের কয়েক হক্টর ফসলি জমি | Sylhet i News
মঙ্গলবার, ১৭ মে ২০২২, ১০:৩৬ পূর্বাহ্ন



গোয়াইনঘাট প্রতিনিধি :>>

প্রকাশ ২০২২-০৫-১৩ ১১:৫৮:১৭
গোয়াইনঘাটে একটি বেড়িবাঁধে রক্ষা পেলো কৃষকের কয়েক হক্টর ফসলি জমি

সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলার তোয়াকুল ইউনিয়নে একটি মাত্র বেড়িবাঁধের কারনে রক্ষা পেল কৃষকের কয়েক হেক্টর ফসলি জমি। শতাধিক কৃষকের ঘরে উঠলো কয়েক লাখ টাকার বুরো ধান। চলতি বুরো মৌসুমে উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে গোয়াইনঘাট উপজেলার প্রতিটি হাওরে রূপায়িত বুরো ধান তলিয়ে যায়। ফলে উপজেলার পূর্ব জাফলং, পূর্ব আলীরগাঁও, পশ্চিম আলীরগাঁও, রুস্তুমপুর, লেঙ্গুড়া, ডৌবাড়ী, নন্দিরগাঁও ও তোয়াকুল ইউনিয়নের সবকটি হাওরে রূপায়িত বুরো ধান কৃষকেরা কাটতে পারেনি। অপর দিকে তোয়াকুল ইউনিয়নের পূর্ব পেকেরখাল (লক্ষীনগর) গ্রামবাসী তাদের এলাকায় রূপায়িত বুরোধান পাহাড়ি ঢল থেকে রক্ষার জন্য পূর্ব পেকেরখাল মৌজার সরকারি ১ নং খাস খতিয়ানের ১ নং দাগ ও জেএল সাবেক ১৪৯ বর্তমান বিএস ১২৭ এ একটি ফসল রক্ষা নির্মাণ করেন।

এ বাঁধটি নির্মাণের ফলে প্রায় আড়াই শতাধিক পরিবার কয়েক লাখ টাকা মূল্যের বোরোধান ঘরে তুলেছেন। স্থানীয় গ্রামবাসীর মধ্যে আব্দুল খালিক, সেলিম আহমদ, মুজিবুর রহমান, মঈন উদ্দিন, আব্দুল করিম, কালা মিয়া,আয়াত উল্লাহসহ অনেকেই জানান, প্রায় প্রতিবছর উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢল ও স্থানীয় ভারি বর্ষণে আমাদের হাওরে রূপায়িত ধান তলিয়ে যায়। এমনিতেই আমরা হাওরে বসবাস করি নানা সমস্যায় জর্জরিত হই।তার মধ্যে আমাদের রূপায়িত ধান বন্যায় নিয়ে গেলে আমরা সন্তানাদি নিয়ে অতি কষ্টে দিনাতিপাত করি। তাই আমরা গ্রামবাসী বিভিন্ন সভা করে বোরোধান রক্ষায় একটি বেড়িবাঁধ নির্মাণের সিদ্ধান্ত নেই। এই বাঁধটি নির্মাণের ফলে আমাদের প্রায় ৩ হেক্টর জমির বোরোধান ঘরে তুলতে পেরেছি। আমরা গ্রামবাসী একত্রিত হয়ে এ উদ্যোগ নেওয়ায় সহ্য হয়নি আমাদের পার্শ্ববর্তী পূর্ব পেকেরখাল (নয়াহাটি) গ্রামের একটি কুচক্রী মহলের। তাদের মধ্যে 

মারুফ আহমদ নামের জনৈক ব্যাক্তি বাদী হয়ে সিলেটের মাননীয় চীপ জুডিশিয়াল ম্যাজিট্রেটের আদালতে পূর্ব পেকেরখাল লক্ষীনগর গ্রামের নিন্মলিখিত ব্যাক্তিদের আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেন। আসামিরা হলেন, আব্দুল খালিক, সেলিম আহমদ, মুজিবুর রহমান, মঈন উদ্দিন, আব্দুল করিম, কালা মিয়া,আয়াত উল্লাহ,কুতুব আলী,আহমদ আলী, আব্দুল হাসিম, আব্দুল খালিক, রবু মিয়া ও জয়নাল। অসহায় কৃষক পরিবার গুলোর দাবী সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষকে সরেজমিন পরিদর্শন করে কৃষক পরিবারের সহযোগীতা করতে।

আই নিউজ/ এল টি

ফেসবুক পেইজ