লন্ডনের ব্রিকলেন ১৯৭৮ চিত্র প্রদর্শনীর উদ্ভোধন | Sylhet i News
শনিবার, ২৫ জুন ২০২২, ০৮:০৭ পূর্বাহ্ন



আনসার আহমেদ উল্লাহ

প্রকাশ ২০২২-০৬-১২ ১৭:৪৫:১৫
লন্ডনের ব্রিকলেন ১৯৭৮ চিত্র প্রদর্শনীর উদ্ভোধন


১০ই জুন থেকে পূর্ব লন্ডনের বেথনাল গ্রীনের  ফোর কর্ণাস গ্যালারীতে আনুষ্টানিক ভাবে উদ্বোধন করা হয়েছে ‘ব্রিকলেন ১৯৭৮: ঘুড়ে দাঁড়ানোর সময়’ নামের চিত্র প্রদর্শনীর।  প্রদর্শনী চলবে ১০ সেপ্টেম্বর ২০২২ পর্যন্ত।


সে সময়কার  ফটোগ্রাফার পল ট্রেভারের ক্যামেরায় ধারনকৃত ৭০টি ঐতিহাসিক ছবি এই প্রদর্শনীতে স্থান পাচ্ছে।  ন্যাশনাল লটারী হেরিটেজ ফান্ডের সহয়োগীতায় প্রদর্শনীর আয়োজন করেছে ফোরকর্ণাস গ্যালারী ও স্বাধীনতা ট্রাষ্ট।




উদ্ভোধনী অনুষ্টানে আয়োজনের বিভিন্ন দিক তুলে ধরে বক্তব্য রাখেন  ফটোগ্রাফার পল ট্রেভার, স্বাধীনতা ট্রাস্টের সভাপতি জুলি বেগম, আলতাব আলী ফাউন্ডেশনের সভাপতি নূরুদ্দিন আহমদ ও  ফোর কর্নারের আর্টিকষ্টিক ডেভল্যপমেন্ট পরিচালক কার্লা মিচেল।




সেময় ব্রিটিশ বাঙ্গালীদের যারা  বর্ণবাদ বিরোধী আন্দোলনে অংশ নিয়েছিলেন অনেকেই আর ইহজগতে নেই  যারা এখনও জীবিত আছেন , তাদের কয়েকজন উপস্থিত হয়েছিলেন উদ্ভোধনী অনুষ্টানে তাদের মধ্যে, সেদিন বাঙ্গালীদের পাশে যে কয়েকজন ইংরেজ দাড়িয়েছিলেন তাদের অন্যতম ট্রেড ইউনিয়নিস্ট ড্যান জোন্স, ডেনিস জোনস, এভেন্যূজ আনলিমিটেডের ক্লেয়ার মারফি, বাংলাদেশ ইয়ুথ এসোসিয়েশনের,  সাবেক ডেপুটি মেয়র আকিকুর রহমান, বাংলাদেশ ইয়ুথ ফ্রন্টের, আন্টি রেসিস্ট কমিটি এগেইনস্ট রেসিয়াল এটাকের সাধারণ সম্পাদক জামাল হাসান, সাবেক কাউন্সিলার সোনাহর আলী, বাংলাদেশ ইয়ুথ ফ্রন্টের সাবেক মেয়র ছয়ফুল আলম, বাংলাদেশ ইয়ুথ মুভমেন্টের, সাবেক কাউন্সিলার রাজনউদ্দিন জালাল, বাংলাদেশ ইয়ুথ ফ্রন্টের আলা উদ্দিন, বাংলাদেশ ইয়ুথ ফ্রন্টের জামাল মিয়া, প্রগ্রেসিভ ইয়ুথ অর্গানিসশনের, সাবেক মেয়র আব্দুল মুকিত চুনু এমবিই, প্রগ্রেসিভ ইয়ুথ অর্গানিসশনের শোভা মতিন, বাংলাদেশ ইয়ুথ মুভমেন্টের, সাবেক কাউন্সিলর আব্দুল আসাদ, বাংলাদেশ ইয়ুথ ফ্রন্টের রফিক উল্লাহ, বাংলাদেশ ইয়ুথ মুভমেন্টের, ফকর উদ্দিন বিলি, স্থানীয় বাসিন্দা ও ব্যবসায়ী জাভেদ ইকবাল, বাংলাদেশ ইয়ুথ মুভমেন্টের রাজু নেথান, সাউদা মমিন, পারুল হোসেন   প্রমুখ।  বক্তা এবং আন্দোলন কারীরা বলেন ১৯৭৮ এর বর্ণবাদ বিরোধী আন্দোলন ব্রিটিশ সামাজিক ইতিহাসের একটি অংশ, ‍১৯৭৮ এর বর্ণবাদ বিরোধী আন্দোলনের ঘটনাটি পাঠ্রসূচীর অন্তরভূক্তিরও দাবী জানান তারা।




এখানে উল্লেখ্য যে ১৯৭৮ সালের ৪টা মে  গারমেন্টস শ্রমিক  আলতাব আলী বর্ণবাদীদের হাতে খুন হন। এই ঘটনার পর বাঙ্গালী সহ সকল মাইগ্রেন্ট কমিউনিটির মানুষ ঐক্যব্দ হয়, গড়ে তোলে প্রতিরোধ। ১৪মে আলতাব আলীর কফিন নিয়ে হাজার হাজার মানুষ হাইড পার্ক হয়ে ব্রিটিশ পার্লামেন্টে  গিয়ে  স্মারক লিপি প্রদান করে প্রধান মন্ত্রীর দপ্তর, দশ নং ডাইনিং ষ্ট্রীটে।  ব্রিটেনের  বাঙ্গালী যুবকরা ঐক্যবদ্ধ হয়ে উগ্রবাদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলে।  স্থানীয় ফটোগ্রাফার পল ট্রেভর ৪০০ টিরও বেশি ফটোগ্রাফে  বর্নবাদীদের  নাটকীয় ঘটনাগুলি তুলে ধরেছেন তার আলোক চিত্রে।  যার মধ্যে অনেকগুলি এই প্রদর্শনীতে প্রথমবারের মতো প্রদর্শিত হচ্ছে ৷




আই নিউজ / এপি

ফেসবুক পেইজ