সিলেট ৩ : প্রচারণায় এগিয়ে হাবিব, পিছিয়ে আতিক-শফি | Sylhet i News
শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৬:৫১ পূর্বাহ্ন

নিজস্ব প্রতিবেদন :>>

প্রকাশ ২০২১-০৭-০২ ০০:২৮:৩২
সিলেট ৩ : প্রচারণায় এগিয়ে হাবিব, পিছিয়ে আতিক-শফি

সিলেট ৩ আসনের উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে আগামী ২৮ জুলাই। ইতোমধ্যে প্রতিক পেয়ে প্রচার-প্রচারণা শুরু করে দিয়েছেন প্রার্থীরা। এই উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন নিয়ে দলের জেলা সদস্য হাবিবুর রহমান হাবিব নৌকা প্রতিকে নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন, জাতীয় পার্টি থেকে লাঙ্গল প্রতিকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন পার্টির কেন্দ্রীয় প্রেসিডিয়াম সদস্য আতিকুর রহমান আতিক, এই নির্বাচনে বিএনপি অংশ না নিলেও দলের কেন্দ্রীয় কমিটির প্রভাবশালী নেতা (সদ্য বহিস্কৃত) শফি আহমদ চৌধুরী স্বতন্ত্র ভা্বে মোটর গাড়ি প্রতিক ও ডাব প্রতিক নিয়ে নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন কংগ্রেসের প্রার্থী জুনায়েদ মোহাম্মদ মিয়া।


তবে এখন পর্যন্ত নির্বাচনী মাঠে প্রচার প্রচারনায় এগিয়ে আছেন আওয়ামীলীগের দলীয় প্রার্থী হাবিবুর রহমান হাবিব। প্রতিদিন সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত চালাচ্ছেন প্রচার প্রচারনা গ্রাম ওয়ার্ড  মহল্লা ইউনিয়ন এমনকি বাসা বাড়ীতে সরব উপস্থিতি দেখা যাচ্ছে সরকার দলীয় এই প্রার্থীর।


সাধারণ ভোটারদের মতে, হাবিবুর রহমান রহমান এরই মধ্যে ভোটারদের মধ্যে উৎসাহ উদ্দীপনা তৈরি করতে সক্ষম হয়েছেন অপর দিকে সংসদে প্রধান বিরোধী দল জাতীয় পার্টির প্রার্থীকে আতিকুর রহমান আতিক এখন পর্যন্ত ভোটারদের কাছে যাওয়া তো দুরের কথা তার দলের নেতা কর্মীদের কাছে টানতে পারছেন না।


নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক দক্ষিণ সুরমা উপজেলা যুব সংহতির এক নেতা অভিযোগ করে বলেন, জাতীয় পার্টির প্রার্থী আতিকুর রহমান আতিক জনবিচ্ছিন্ন ভাবে কয়েকটি স্থানে প্রচারনা ও সিলেট জেলা জাতীয় পার্টির সমন্বয় একটি সভা ছাড়া তার তেমন একটা তৎপরতা নেই। এখন পর্যন্ত ইউনিয়নের পর্যায় যেতে পারেননি তিনি। তার কাজের কোন সমন্বয় নাই। 

তিনি আরও অভিযোগ করেন, বহিরাগত লোকজন নিয়ে কমিটি করা ও তাদের নিয়ে চলাফেরা করছেন আতিক। তাছাড়া তিনি বাড়িতে না নগরীর নামিদামি হোটেল অবস্থান করায় যোগাযোগ করা সম্ভব হয়না সাধারণ কর্মীদের। 


জাতীয় পার্টির একাধিক নেতা কর্মীর সাথে আলাপকালে তারা জানান, এমন অবস্থা চলতে থাকলে সুচনীয় পরাজয় হবে জাতীয় পার্টির এই প্রার্থীর। এতে দলের ভাবমুর্তি চরম ভাবে ক্ষুন্ন হবে। 


তারা সময় থাকতে দলের শৃংখলা ফেরাতে কেন্দ্রের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।


এদিকে, বিএনপি থেকে সদ্য বহিস্কৃত স্বতন্ত্র প্রার্থী সাবেক এমপি মাঠে চষে বেড়ালেও জনগণের তেমন সাড়া পাচ্ছেন না। তারপরও নানা ভাবে চেষ্টা করছেন জনসমর্থন তার পক্ষে নেওয়ার। 


অপর প্রার্থী কংগ্রসের জুনায়েদ মোহাম্মদ মিয়ার কোন তৎপরতা লক্ষ্য করা যায়নি। এমন কী তার কোন পোষ্টারও দেখা যায়নি কোথাও।

মাঠ পর্যায় এখন পর্যন্ত আওয়ামীলীগ দলীয় প্রার্থী হাবিবুর রহমান হাবিব একক ভাবে এগিয়ে আছেন বলে জনসাধারনের মধ্যে আলাপ আলোচনা চলছে। হাবিবুর রহমান হাবিবে প্রতিদ্বন্দ্বী কে হবে এখন পর্যন্ত তা বলা যাচ্ছেনা । সময় যত ঘনিয়ে আসবে তখন তা স্পষ্ট হবে এমনটি ধারণা

আইনিউজ/এমএনআই/এসএম

ফেসবুক পেইজ