সিলেটের ডাক্তারপাড়ায় তাদের দৌরাত্ম্য, ভোগান্তিতে রোগীরা | Sylhet i News
শনিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২১, ০১:৪৬ অপরাহ্ন

লিমন তালুকদার:

প্রকাশ ২০২১-১১-১০ ২০:০০:২৮
সিলেটের ডাক্তারপাড়ায় তাদের দৌরাত্ম্য, ভোগান্তিতে রোগীরা

সিলেটের পপুলার ডায়াগনস্টিক সেন্টারে ডাক্তারের চেম্বার থেকে বের হয়ে আসছিলেন জৈনক্য এক যুবক। হাতে রয়েছে চিকিৎসকের প্রেসক্রিপশন। চেম্বার থেকে বের হয়ে কয়েক কদম আসতেই কয়েকজন সুদর্শন পুরুষ তাকে ঘিরে ধরলেন। কিছু বুঝে উঠার আগেই মূহুর্তের মধ্যে হাতে থাকা প্রেসক্রিশন নিয়ে শুরু করেন ফটোসেশন তারা। শুধু একজন নয় একে একে ৫/৬জন ব্যক্তি ছবি তুলেন সেই প্রেসিক্রিপশন এর। আচমকা কিছু বুঝে উঠতে না পেরে অনেকটা ভড়কে যান সেই যুবক। তবে তাতে ভ্রুক্ষেপ নেই সুদর্শন পুরুষদের। ফটোসেশন শেষ হলে ফিরিয়ে দেয়া প্রেসক্রিপশন।

শুধু এই যুবক নয়। এটি সিলেটের ডাক্তারপাড়ায় আসা প্রায় রোগীরাই এভাবেই প্রতিনিয়ত বিভ্রান্তির শিকার হচ্ছেন রিপ্রেজেন্টেটিভদের কাছে।

তা সিলেটের নতুন কোন বিষয় নয়। রীতিমত এ বিষয় নিয়ে ভোগান্তিতে রয়েছেন রোগীরা। চিকিৎসকের চেম্বার থেকে বের হলেই তাদের থামিয়ে হাতে থাকা প্রেসক্রিপশনের ছবি তুলেন ওষুধ কোম্পানির প্রতিনিধিরা। উদ্দেশ্য থাকে কোন কোম্পানির ওষুধ লিখেছেন চিকিৎসক এটা দেখার। রোগীরা মুমূর্ষ অবস্থা থাকলেও এ চিত্র বদলায় না। এতে থাকছে না রোগীর ব্যক্তিগত গোপনীয়তা।

বুধবার (১০ নভেম্বর) সিলেট নগরীর বিভিন্ন জায়গায় এমন চিত্রও দেখা যায়। সিলেটের হাসপাতাল গুলোতে বেড়েছে ওষুধ কোম্পানির প্রতিনিধিদের দৌরাত্ম্য।

আফজল নামে এক ব্যক্তি বলেন ওষুধ কোম্পনির প্রতিনিধিদের কারনে কোন ভাবেই আমাদের রোগীদের ব্যক্তিগত গোপনীয়তা থাকতে পারতেছি না। তিনি আরও বলেন তারা অপেক্ষা করে বাহিরে কবে ডাক্তারের চেম্বার থেকে বের হবে রোগী আর প্রেসক্রিপশনের তোলবে ছবি।

সংশ্লিষ্টরা জানান, তাদের একাধিকবার নিষেধ করা সত্ত্বেও রোগী দেখার সময় বহির্বিভাগে এসে ভিড় জমাচ্ছেন। এ ভোগান্তি থেকে পরিত্রাণ চান ভূক্তভোগীরা।

এসএম

ফেসবুক পেইজ