জগন্নাথপুরে প্রেমিকের সাথে শারীরিক সম্পর্কে কিশোরীর সন্তান প্রসব, নবজাতকের মৃত্যু | Sylhet i News
শনিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২১, ০২:৪৯ অপরাহ্ন

জগন্নাথপুর প্রতিনিধি

প্রকাশ ২০২১-১১-২৫ ১১:৫০:৫৩
জগন্নাথপুরে প্রেমিকের সাথে শারীরিক সম্পর্কে কিশোরীর সন্তান প্রসব, নবজাতকের মৃত্যু

জগন্নাথপুরে প্রেমের ফাঁদে ফেলে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপনের ফলে এক কিশোরীর সন্তান প্রসব করার ২০ ঘন্টা পর নবজাতকটি মারা গেছে। মঙ্গলবার (২৪ নভেম্বর) বিকেলে পুলিশ শিশুর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে।

জানা যায় , উপজেলার চিলাউড়া হলদিপুর ইউনিয়নের গোয়াসপুর গ্রামের মৃত ছনর মিয়ার ছেলে মারুফ মিয়া (২৪) সালদিঘা গ্রামের এক কিশোরীর (১৬) সাথে প্রেম করে বিয়ের প্রলোভনে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন করে। বিষয়টি জানাজানি হলে মেয়ের পরিবারের পক্ষ থেকে বিয়ের জন্য মারুফ মিয়ার পরিবারের কাছে বলা হয়। মারুফ বিয়ের আশ্বাসে সময়ক্ষেপণ করতে থাকে। এক পর্যায়ে এ নিয়ে একটি সালিশ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

সালিশ বৈঠকে উপস্থিত এলাকার প্রবীণ ব্যক্তি খেজর ইসলাম বলেন, সালিশ বৈঠকে উভয়পক্ষের কথা শুনে কিশোরীকে বিয়ে করতে আমরা রায় দেই। কিন্তু সালিশ বৈঠকের রায় অনুযায়ী আর ওই যুবক বিয়ে করেনি।

এ ঘটনায় মেয়েটির বাবা বাদী হয়ে গত রোববার সুনামগঞ্জ আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন। ওইদিন দুপুর ১টায় নিজ বাড়িতে কিশোরীটি এক ছেলেসন্তানের জন্ম দেয়। ২০ ঘন্টা পর ওই নবজাতক সোমবার সকাল ৯টায় মারা যায়।

কিশোরীর বাবা জানান, আমার মেয়েকে বিয়ের প্রলোভনে তার সােথ শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন করে বিয়ে করতে অস্বীকৃতি জানালে আমি বিষয়টি তাদের অভিভাবক ও এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গকে অবহিত করি। এ নিয়ে একটি সালিশ বৈঠক বসে। এতে বিয়ে করার সিদ্ধান্ত দিলেও ছেলে না মানায় আমি ধর্ষণের বিচার ও সন্তানের পিতৃপরিচয়ের জন্য সুনামগঞ্জের জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা দায়ের করেছি।

বুধবার ঘটনাস্থল পরিদর্শন কারী জগন্নাথপুর থানার সাব ইন্সপেক্টর দিপংকর তালুকদার বলেন, সন্তানের পিতৃ পরিচয় ও মৃত্যুর কারণ নির্ণয়ে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সুনামগঞ্জ প্রেরণ করেছি। ডাক্তারী প্রতিবেদন পাওয়ার পর প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্হা নেব।

এমএনআই

ফেসবুক পেইজ