“মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে নিয়োগ দুর্নীতিতে জড়িতদের শাস্তি দিন” | Sylhet i News
মঙ্গলবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২২, ০৮:২৮ পূর্বাহ্ন



নিজস্ব প্রতিবেদন ::

প্রকাশ ২০২১-১২-০৪ ১৭:০৮:০০
“মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে নিয়োগ দুর্নীতিতে জড়িতদের শাস্তি দিন”

বিভিন্ন ন্যায্য দাবী আদায়ের লক্ষ্যে সিলেট বিভাগ গণদাবী পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটি আয়োজিত আলোচনা সভা ৪ ডিসেম্বর শনিবার বেলা ২টায় সিলেট নগরীর পুরান লেনে অবস্থিত ৫৩নং সমবায় ভবনস্থ সংগঠনের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়।

 সিলেট বিভাগ গণদাবী পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক এম. শফিকুর রহমান এর সভাপতিত্বে ও কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল ইসলাম মিঠুর সঞ্চালনায় সভায় নেতৃবৃন্দ বলেন, সিলেটবাসীর বহু প্রতিক্ষিত স্বপ্ন আন্দোলনের মাধ্যমে বাস্তবায়িত হওয়া সিলেট মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে জনবল লোক নিয়োগের নামে যে জঘন্যতম দুর্নীতি কেলেংকারী হয়েছে তাতে সিলেটবাসী হতবাক। 

নেতৃবৃন্দ বলেন, এই দুর্নীতির মাধ্যমে বহিরাগতদের মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে নিয়োগ দেয়া হয়েছে। তা অবিলম্বে বাতিল করতে হবে। নিয়োগ দুর্নীতিতে জড়িতদের অনতিবিলম্বে খোঁজে বের করে শাস্তি দিতে হবে। স্থানীয় মেধাবী শিক্ষিত বেকারদের সেখানে চাকুরী দিতে হবে। এই প্রতিষ্ঠান কারো বাপ-দাদার নয়, সেজন্য এটাকে কেন্দ্র করে কারো একাধিক দুর্নীতি করে রক্ষা পাবার নয়। 

নেতৃবৃন্দ সুনামগঞ্জের হাওর দিয়ে উড়াল সেতু প্রকল্প অনুমোদন করায় প্রধানমন্ত্রী ও পরিকল্পনা মন্ত্রীকে অভিনন্দন জানান।  

সভায় নেতৃবৃন্দ বলেন, ১৬ বছর আগে সিলেটে উড়াল সেতু নির্মাণের আলোচনা হয়েছিল। এখন সেটি যোগ্যতার অভাবে মার খেয়েছে। সিলেটের চেয়ে কম গুরুত্বপূর্ণ অঞ্চলে মেগা মেগা প্রকল্প অনুমোদন ও উন্নয়ন হয় কিন্তু সিলেটের বেলায় তা দুঃখজনক বটে। 

যুগ যুগ ধরে সিলেটের তেল, গ্যাস সম্পদ দিয়ে বাংলাদেশের অর্থনীতি সমৃদ্ধ হয়েছে কিন্তু বিগত জাতীয় নির্বাচনী প্রতিশ্রুতিতে সিলেট সদর আসনের এমপি মহোদয় বলেছিলেন, ‘সিলেটের মানুষ আবাসিক গ্যাস লাইন সংযোগ সুবিধা পাবেন’। কিন্তু তা বাস্তবায়িত হলো না। সিলেট সিটি কর্পোরেশন এলাকা সমূহের সীমানা দিয়ে বৃত্তকারে একটি ট্রেন লাইন চালু করার দাবী ছিল, সেটিও হলো না।

সিলেটে আঞ্চলিক পূর্ণাঙ্গ টেলিভিশন কেন্দ্র অবিলম্বে চালু করতে হবে। মহানগরীর ফুটপাত হকারদের অবৈধ দখল থেকে মুক্ত করতে হবে। স্থায়ী বাসিন্দাদের স্বার্থ সংরক্ষণ করতে হবে। সভায় নেতৃবৃন্দ বলেন, সিলেট সদরের খাদিমন নগর ইউনিয়ন ও খাদিমপাড়া ইউনিয়ন সংলগ্ন এলাকায় সরকারি খাস ভূমির টিলা পাহাড় যারা বেদখল করে রেখেছে তাদেরকে অবিলম্বে উচ্ছেদ করে সরকারের নিয়ন্ত্রণে আনতে হবে। সিলেট উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ বিল অনতিবিলম্বে পাশ করে নগরবাসীর কাজে লাগতে হবে। সিলেট ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরের রানওয়ে প্রকল্প কাজ ধীরগতি হওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করে এ প্রকল্প দ্রুত সম্পাদনের আহবান জানানো হয়। 

সভায় বিমান বন্দরে প্রবাসী যাত্রী হয়রানী অনতিবিলম্বে বন্ধ করতে হবে। সভায় সিলেট এম.এ.জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিম্ন ও মাঝারি স্তরের দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিতে হবে। সিলেটের শ্রমজীবী পরিবার সদস্যদের সরকারি চাকুরী দিতে হবে।

সভায় বক্তব্য রাখেন পরিষদের কেন্দ্রীয় সিনিয়র সহ সভাপতি অধ্যাপক আব্দুস সাত্তার, সহ সভাপতি মাহবুবুর রহমান খালেদ, আলহাজ্ব মামুনুর রশীদ, ফারুক আহমদ চৌধুরী, সদস্য সিলেট জেলা হিউম্যান হলার চালক সমিতির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ইনছান আলী, কোর্ট পয়েন্টে টুকেরবাজার শাখার সভাপতি মোঃ শফিকুল আহমদ, সাধারণ সম্পাদক উছমান গনি, মইনুল ইসলাম, সেলিম আহমদ, পানুর রহমান পানু, বেলাল আহমদ, শাহ মোঃ ইব্রাহিম আলী, নিজাম উদ্দিন, শিমুল আহমদ, কামিনী বৈদ্য, ফখরুল ইসলাম, আরিফ মিয়া, মোঃ শামীম প্রমুখ। 


আইনিউজ/জেইউ

ফেসবুক পেইজ